অতীতের সময়ে।


হয়তো ভেবেছি পৃথিবীটা সুন্দর হলে কেমন হয়? দাঁড়িয়ে আছি আজ প্রাচীনের কোথাও।


রাস্তার পুরনো বাতিগুলোর আলো খুবই মৃদু মনে হয়। গ্রামের জোনাকির আলোয় নেই নিরাপত্তার পরশ কোথাও। ঘুটঘুটে অন্ধকারে হয়তো কোন বন্য প্রাণী আক্রমণ করবে আমাকে। ভাবছি, প্রকৃতি আসলে তেমন গুছানো কিছু নয়। প্রকৃতির এই অপ্রয়োজনীয় ঝোপঝাড়গুলো আসলেই মানব নিরাপত্তার বড় এক প্রতিবন্ধকতা। আমি কাল সকালেই মজুরদের নিয়োগ করবো এই অপ্রয়োজনীয় গাছগুলো কেটে একটা পরিষ্কার প্রকৃতিমুক্ত সড়ক তৈরির জন্য। এরপর আমি এখানে সারি সারি আধুনিক বৈদ্যুতিক খুঁটি বসাবো। আমার এই নতুন সড়কে আমার কিছু দোকানও প্রয়োজন। কারণ, এটা সড়কের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করবে আর চারিদিকে থাকবে মানুষের চলাচল গভীর রাত পর্যন্ত। এটা মানব নিরাপত্তার জন্য খুব প্রয়োজনীয় কিছু।


এইতো কিছুদিন আগেই দেখেছি, ঐ ঝোপেই থাকতো স্বর্গের শৃগালের একটা পরিবার। কিন্তু, নিকষ রাতে এদের বিরক্তিকর সঙ্গীতে মহাবিরক্ত ও ভীত আমি।


এই ঝোপেই ছিল টুনটুনি পাখিদের বাসাগুলো, বুলবুলিরা আমার স্বার্থের প্রয়োজনে তেমন প্রয়োজনীয় কেও নয় আজ। আমার শিক্ষার তীব্রতায় আমি কঠোরভাবে ভুলে যেতে চাই, ঐ পাখিগুলোই ছিল আমার শৈশবের খেলার সাথীদের কেও। ঐ ঝোপেই তো লুকোচুরি খেলতাম সহপাঠীদের সাথে। বুনো লেবুর ঘ্রাণে মৌ মৌ করতো তখন ঐ অতীতের প্রকৃতি।

আজ উচ্চ শিক্ষার আলোয় মূর্খ আমি এই আদিম প্রকৃতির মাঝে।

আমার ঐ নোংরা স্বপ্নই সত্যি হল অবশেষে। ঝোপঝাড়গুলো নেই ওখানে, স্বর্গের শৃগালের বিলুপ্তি, শৈশবের সহপাঠী পাখিগুলোর ভগ্ন হৃদয়ে প্রস্থানে বিচলিত নই আমি। রাস্তার দু’পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটির সারিতে আজ দাঁড়িয়ে আমি এই নিষ্প্রাণ সড়কের মাঝে কোথাও। সড়কের দু’পাশেই অনেকগুলো দোকান আছে এখন। আমি শুধু মানুষের আনাগোনা দেখতে পাই এখন। এটাই তো আমি চেয়েছিলাম, আমি চেয়েছিলাম প্রকৃতিকে সাজাবো আধুনিক প্রযুক্তিতে।


আজ, কেন হঠাৎ আবিষ্কার করেছি নিজেকে এই অশ্রুসিক্ত বর্তমানে? এ কি করেছি আমি, আজ আমি পরিতাক্ত কেও এই প্রকৃতির সর্বত্র।


চিরতরে হারিয়ে গেল স্বর্গীয় প্রকৃতির ঐ সাজানো বাগান। কখনো তো নিজেকে প্রশ্ন করিনি, কোথায় করেছি ভুল, কোথায় করেছি পাপ। প্রকৃতিকে অগোছানো ভাবাটাই ছিল পাপ, আর প্রকৃতিকে প্রযুক্তির প্রয়োগে সাজানোটা ছিল মহাভুল। কি করবো আমি এখন এই মৃতপ্রায় পৃথিবীতে? প্রকৃতির প্রাকৃতিক অলংকার ছিনিয়ে সাজিয়েছি প্রকৃতিকে প্রযুক্তির জরাজীর্ণ আবরণে।

এভাবেই তো হারিয়ে গেলো প্রাচীন স্বর্গ এই মরুসম পৃথিবীতে।