অন্যদের মাঝে।


শহরে কি আমি আলোকিত হই জোনাকির আলোতে? আমার পাপের দায়ভার প্রকৃতি নেবে কেন? এটাই কি প্রশ্ন ছিল, “কিভাবে হবো নিষ্পাপ আমি?”


এই উত্তরের আগে আমি পাঠশালায় শিখব, আমি মরে যাচ্ছি কেন তা। আমি তো ভালবাসি আমার রিপুকে। কিন্তু, আমি দেখতে অভ্যস্ত নই রিপু অন্য কারো মধ্যে, কারণ অন্যদের রিপুগুলো আমাকে দেখায় আমার রিপু মিস্রিত জঘন্য চেহারা আমাকেই। আর অন্যদের রিপু হয়ত আমার রিপুর চেয়ে শক্তিশালী আর এখানেই শুরু হয় শীতল স্নায়বিক যুদ্ধ। কারণ, রিপু গুলো খুঁজে বেড়ায় তাদের পরমাত্মীয় রিপুদের অন্যদের মাঝে, আর যখন তারা এক হয় তখন আমরা নিষ্পাপ প্রানেরা হয়ে যাই একে অপরের শত্রু। রিপু হল অস্তিত্বের নীরব আততায়ী বন্ধুর ছদ্মবেশে।


তাহলে, এখন শিখেছি আমাকে মেরে ফেলছে আমার রিপুই। রিপুই তো আমাকে শিখিয়েছে আমার পাপের দায়ভার নিষ্পাপকে দিতে।


আরও শিখেছি, নিষ্পাপকে চালিত করে নিষ্পাপ সব কিছু ধ্বংস করাতেই রিপুর সার্থকতা। এখন আমি জেনেছি কিভাবে নিষ্পাপ হবো আমি। আরও স্পষ্টভাবে জেনেছি রিপু ধ্বংসে মৃতপ্রায় স্বর্গে হবে প্রাণপ্রতিষ্ঠা।


Leave a Reply